1. iadmin@girisangbad.com : Girisangbad.com : Kamal Uddin
  2. kamalnews.cht@gmail.com : MD. Kamal Uddin : Kamal Uddin
রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৮:১১ পূর্বাহ্ন
গিরি সংবাদ শিরোনাম:
নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে স্থল মাইন বিস্ফোরনে এক রোহিঙ্গা কিশোর নিহত ‘মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম’ স্থাপনে এটুআই প্রতিনিধিদের সাথে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সাক্ষাৎ বঙ্গবন্ধু জাতীয় যুব দিবস ২০২০উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত রাঙ্গামাটি জেলার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে চেক বিতরণ জনচলাচলের রাস্তা বন্ধ করে জনদূর্ভোগ সৃষ্টি ও মিথ্যা অপপ্রচার ও হয়রানী থেকে মুক্তি পেতে সংবাদ সম্মেলন বাঘাইছড়িতে নিউট্রিশন সেনসেটিভ প্রোগ্রামিং প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির সীমান্তে বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা ইয়াবা কারবারি নিহত : ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধার আসামবস্তী-কাপ্তাই সড়ক ও আর্ট কাউন্সিল কলোনী সংযোগ ব্রীজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন রাঙামাটিতে ভূমিদস্যু কর্তৃক ভাংচুর, লুটপাট ও নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন বাঘইছড়ির বাবু পাড়ায় জেএসএস সংস্কার সমর্থিত পিসিপি নেতা নিহত

ধর্ষণ মামলায় এখন থেকে মেডিকেল রিপোর্ট মুখ্য নয় -” ১ লাখ ৭০ হাজার নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৫ অক্টোবর, ২০২০

নিজস্ব প্র‌তি‌নি‌ধি(গিরিসংবাদ)-১৫অক্টোবর ২০২০ইং

এখন থেকে ধর্ষণ মামলায় মেডিকেল রিপোর্ট মুখ্য নয় ! ধর্ষণ মামলায় যুগান্তকারী রায় এলো হাইকোর্ট থেকে। পারিপার্শিক অবস্থা ও সাক্ষ্য বিবেচনায় নিয়ে দেয়া যাবে সাজা।

১৪ অক্টোবর, বুধবার বিচারপতি রেজাউল হকের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দিয়েছেন। সেই সাথে কোনো ভুক্তভোগী দেরিতে মামলা করলে সেটি মিথ্যা বলা যাবে না।
ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদণ্ডের বিধান করে মঙ্গলবার অধ্যাদেশ জারি হয়। আগের সর্বোচ্চ সাজা থেকে সরে এসে এবার ধর্ষকের সাজা মৃত্যুদণ্ড হয়।

ধর্ষণের মামলার সংজ্ঞায় বলা আছে, মেডিকেল রিপোর্ট ছাড়া কোনোভাবেই সাজা দেয়া যাবে না আসামিকে। ধর্ষণ মামলা প্রমাণ করতে তাই অন্যতম অস্ত্র মেডিকেল রিপোর্ট। কিন্তু বুধবার হাইকোর্ট তার এক রায়ে জানিয়ে দিয়েছে, এখন থেকে মেডিকেল রিপোর্ট ছাড়াও পারিপাশ্বিক অবস্থা বিবেচনায় নিয়ে ধর্ষণের সাজা দেয়া যাবে।

২০০৬ সালে খুলনার দাকোপ থানায় তাসলিমা নামে ১৫ বছরের কিশোরী মামলা করতে যান। কিন্তু মামলা না নিয়ে সালিশের প্রস্তাব দেয় পুলিশ। পরবর্তীতে ভুক্তভোগীর বাবা আদালতে মামলা করেন। কিন্ত তাতেও পুলিশের চাপে হয়নি মেডিকেল পরীক্ষা। যে মামলায় আসামি ইব্রাহীম গাজীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড বহাল রেখে হাইকোর্ট বলেন, বিলম্ব মানেই কোনো মামলা মিথ্যা নয়।

আদালত তার রায়ে বলেন, ধর্ষণের শিকার ঐ কিশোরী যেন বিচার না পায়,সেজন্য খুলনার দাকোপ থানা পুলিশ সে সময় সব চেষ্টাই করেছিলো।

সুপ্রিম কোর্টের সবশেষ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দেশে নারী ও শিশু নির্যাতনের বর্তমানে ১ লাখ ৭০ হাজার মামলা বিচারাধীন। #

ভালো লাগলে শেয়ার করবেন...

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ