1. iadmin@girisangbad.com : Girisangbad.com : Kamal Uddin
  2. kamalnews.cht@gmail.com : MD. Kamal Uddin : Kamal Uddin
রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৮:০৭ পূর্বাহ্ন
গিরি সংবাদ শিরোনাম:
নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে স্থল মাইন বিস্ফোরনে এক রোহিঙ্গা কিশোর নিহত ‘মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম’ স্থাপনে এটুআই প্রতিনিধিদের সাথে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সাক্ষাৎ বঙ্গবন্ধু জাতীয় যুব দিবস ২০২০উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত রাঙ্গামাটি জেলার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে চেক বিতরণ জনচলাচলের রাস্তা বন্ধ করে জনদূর্ভোগ সৃষ্টি ও মিথ্যা অপপ্রচার ও হয়রানী থেকে মুক্তি পেতে সংবাদ সম্মেলন বাঘাইছড়িতে নিউট্রিশন সেনসেটিভ প্রোগ্রামিং প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির সীমান্তে বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা ইয়াবা কারবারি নিহত : ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধার আসামবস্তী-কাপ্তাই সড়ক ও আর্ট কাউন্সিল কলোনী সংযোগ ব্রীজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন রাঙামাটিতে ভূমিদস্যু কর্তৃক ভাংচুর, লুটপাট ও নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন বাঘইছড়ির বাবু পাড়ায় জেএসএস সংস্কার সমর্থিত পিসিপি নেতা নিহত

শক্তিশালী রাসায়নিক মারণাস্ত্র করোনাভাইরাস, ছড়িয়েছে উহানের ল্যাব থেকেই–ড. ফ্রান্সিস বয়েল

  • আপডেট সময় : বুধবার, ১১ মার্চ, ২০২০

গিরিসংবাদ ডেক্স(দ্য ওয়াল ব্যুরো এ প্রকাশিত)-১১.৩.২০২০ইং- জিনের গঠন বদলে ভয়ঙ্কর রাসায়নিক মারণাস্ত্র নোভেল করোনা, বিস্ফোরক দাবি মার্কিন অধ্যাপক ড. ফ্রান্সিস বয়েল।
কানাডার ল্যাবোরেটরি থেকে ভাইরাস চুরি করে তার জিনের বদল ঘটিয়েছে উহান। তাতেই এত প্রাণঘাতী নোভেল করোনাভাইরাস। উঠে আসছে নানা বিস্ফোরক তথ্য। জিনের গঠন বদলে আরও ভয়ঙ্কর হয়েছে নোভেল করোনাভাইরাস। সাধারণ করোনার থেকে এর বিষ অনেক বেশি। ‘জেনেটিক্যালি মডিফায়েড’ এই করোনাভাইরাসের জন্মদাতা উহানের বায়োসেফটি ল্যাবোরেটরি লেভেল ফোর। আর এই কথা আগে থেকেই জানত বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। আন্তর্জাতিক একটি সাংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমনই বিস্ফোরক দাবি করলেন মার্কিন আইনজীবী, রাসায়নিক মারণাস্ত্র বিরোধী সংগঠনের অন্যতম সদস্য ড. ফ্রান্সিস বয়েল। শক্তিশালী রাসায়নিক মারণাস্ত্র করোনাভাইরাস, ছড়িয়েছে উহানের ল্যাব থেকেই ইউনিভার্সিটি অব ইলিনয়েস কলেজের আইনের অধ্যাপক ড. ফ্রান্সিস বয়েল। রাসায়নিক অস্ত্র নিরস্ত্রীকরণ সংগঠনেরও অন্যতম মাথা তিনি। তাঁর উদ্যোগেই ১৯৮৯ সালে ‘বায়োলজিক্যাল ওয়েপনস অ্যান্টি-টেররিজম অ্যাক্ট’-এর বিল পাশ হয়। নোভেল করোনাভাইরাস যে নিছকই কোনও ভাইরাসের সংক্রমণ নয়, সে বিষয়ে আগেও মুখ খুলেছিলেন ডঃ ফ্রান্সিস। ইজরায়েলি গোয়েন্দা ও মাইক্রোবায়োলজিস্টদের দাবির সমর্থন জানিয়েই ড. ফ্রান্সিস বয়েল বলেন, উহানের ইনস্টিটিউট অব ভাইরোলজির বায়োসেফটি লেভেল ফোর ল্যাবোরেটরিতে অতি গোপনে রাসায়নিক মারণাস্ত্র বানানোর প্রক্রিয়া চলছে। সেখান থেকেই ছড়িয়েছে এই ভাইরাসের সংক্রমণ। সি-ফুড মার্কেটের ব্যাপারটা নেহাতই চোখে ধুলো দেওয়ার চেষ্টা। আর এই কথা বিলক্ষণ জানে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। সব জেনেও গোটা বিষয়টাকে ধামাচাপা দেওয়ার কৌশলী চেষ্টা চলছে।
ড. ফ্রান্সিস বয়েল বলেছেন, উহানের এই বায়োসেফটি লেভেল ফোর ল্যাবোরেটরিকে সুপার ল্যাবোরেটরির তকমা দিয়েছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। বলা হয়েছিল, এই ল্যাবে ভাইরাস নিয়ে কাজ হলেও তা অনেক বেশি সুরক্ষিত ও নিরাপদ। ল্যাবোরেটরির জন্যই রয়েছে আলাদা উইং যার বাইরের পরিবেশের সঙ্গে কোনও যোগাযোগ নেই। ড. ফ্রান্সিস বলেন, সার্স ও ইবোলা প্রাণঘাতী হয়ে ওঠার পরে অভিযোগের আঙুল ওঠে এই গবেষণাগারের দিকেই। রোগ প্রতিরোধ নয়, বরং প্রাণঘাতী জৈব অস্ত্র বানাতেই মত্ত গবেষকরা। যারই পরিণতি হাজার হাজার মৃত্যু। নোভেল করোনাভাইরাসের জিনগত বদল ঘটানো হয়েছে এবং উহানের এই ল্যাবোরেটরি থেকেই যে ভাইরাস ছড়িয়েছে সেটাও জানেন হু-এর অনেক গবেষকই।
কানাডার ল্যাব থেকে করোনা চুরি করেছে চিন, তারই জিনগত বদলে তৈরি হয়েছে নোভেল করোনা
নোভেল করোনাভাইরাস যে রাসায়নিক মারণাস্ত্র, নিশ্চিত করেছেন মার্কিন সেনেটর টম কটনও। তাঁর দাবি, চিন জীবাণুযুদ্ধের জন্য বানাচ্ছিল ওই ভাইরাস। চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং কথাটা লুকোতে চাইছেন কারণ আন্তর্জাতিক আইনে জীবাণুযুদ্ধ নিষিদ্ধ। তাঁরা ওই নিয়ে এক্সপেরিমেন্ট করছিলেন জানাজানি হলে শাস্তির মুখে পড়তে হবে। ২০১৫ সালে রেডিও ফ্রি এশিয়া তাদের রিপোর্টে দাবি করেছিল, উহান ইনস্টিটিউট অব ভাইরোলজিতে ভয়ঙ্কর, প্রাণঘাতী সব ভাইরাস নিয়ে কাজ করছেন গবেষকরা। এর অর্থ জৈব রাসায়নিক মারণাস্ত্রের দিকে ক্রমশ ঝুঁকছে বেজিং।
পরবর্তীকালে ইজরায়েলি সেনা গোয়েন্দা দফতরের প্রাক্তন প্রধান লেফটেন্যান্ট ড্যানি শোহাম বলেছিলেন, বায়ো-ওয়ারফেয়ারের জন্য তৈরি হচ্ছে চিন। জিনের কারসাজিতে এমন ভাইরাস তৈরি করা হচ্ছে যার প্রভাব হবে সাঙ্ঘাতিক। প্রতিরোধের আগেই মহামারীর চেহারা নেবে এইসব ভাইরাসের সংক্রমণ। যে দেশের উপর আঘাত হানা হবে, সেখানে মৃত্যুমিছিল শুরু হয়ে যাবে। টম কটনের দাবি, উহানের সি-ফুড বাজারের কথাটা চিনের স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম রটিয়ে দেয়। কারণ প্রশাসন বুঝতে পেরেছিল যে নিজেদের বানানো মারণাস্ত্রে তারা নিজেরাই কুপোকাৎ।#

ভালো লাগলে শেয়ার করবেন...

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ